May 19, 2022
Friday, 15 April 2022 19:24

নবীগঞ্জে রেঞ্জার ফিজিওথেরাপী ক্লিনিকে অনৈতিক কার্যকলাপ এর ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল আলোচনা সমালোচনা মুখরিত শহর

✍ নিজস্ব প্রতিনিধি :

নবীগঞ্জ শহরে শেরপুর রোডে মাহমুদা ভিলায় রেঞ্জার ফিজিওথেরাপী ক্লিনিক সেন্টারে থেরাপীর অন্তরালে অসামাজিক অনৈতিক কার্যকালাপের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জনৈক গৃহবধূ তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক আইডিতে ফিজিওথেরাপী ক্লিনিকের  ভিতরে অনৈতিক কাজের ছবি ও ভিডিও ক্লিপ দিয়ে একটি ষ্ট্যাটাস দিলে মূহুতেই এ ঘটনা শহরে লোকজনের মুখেমুখে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে। জানাযায়, হাফেজ আব্দুল্লাহ নাঈমের রেঞ্জার ফিজিওথেরাপী ক্লিনিক সেন্টারে জনৈক গৃহবধূ তার চাচি শাশুড়িকে নিয়ে ডাক্তারি পরামর্শে থেরাপী দেওয়ার জন্য ক্লিনিকে যান।এ সময় আব্দুল্লাহ নাঈম রোগীর খোজ খবর নেওয়ার জন্য ওই গৃহবধূর মোবাইল নাম্বার রাখেন।তার পর আব্দুল্লাহ নাঈম রোগীর খোজ খবর নিতে ওই মহিলার সাথে ফোনে কথা বলেন।এক পর্যায়ে আব্দুল্লাহ নাঈম গৃহবধূর ওয়াটসাপে নগ্ন ছবি ও ভিডিও দিয়ে রেঞ্জার ফিজিওথেরাপী ক্লিনিকে তার সাথে একান্ত সময় কাটানোর কুপ্রস্তাব দেন।

ওই গৃহবধূ আব্দুল্লাহ নাঈমের নাম্বার বল্ক করে রাখলে বিভিন্ন নাম্বার থেকে ফোন দিয়ে অসামাজিক কাজ করার জন্য প্রস্তাব দিতেন।তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সে নবীগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র তোফাজ্জল ইসলাম চৌধুরীর নাম ব্যবহার করে হুমকি দেয় বলেও ওই গৃহবধূ তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উল্লেখ করেছেন।বিষয়টি তোফাজ্জল ইসলাম চৌধুরীকে জানানোর পরেও কোন বিচার পাননি বলে গৃহবধূ যোগাযোগ মাধ্যমে আরেকটি ষ্ট্যাটাস দিয়েছেন।ওই গৃহবধূ কোর্টে আইসিটি ও পর্ণগ্রাফি আইনে মামলা করবেন বলেও জানান।খোজনিয়ে জানাযায়,রেঞ্জার ফিজিওথেরাপী ক্লিনিক প্রথমে নবীগঞ্জ শহরের মধ্য বাজারে একটি দোকান কোটা ভাড়া নিয়ে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে।এ সময় তিনজন মহিলা দ্বারা থেরাপী পরিচালনা করলে সচেতন নাগরিকরা এটি ভালো চোখে দেখেননি।এই বিষয় নিয়ে আলোচনা হলে চতুর চালাক থেরাপী সেন্টারের মালিক এই স্থান থেকে ব্যবসা নিয়ে শেরপুর রোডে চলে যান।রুম ছাড়ার পরওই দোকানের পিছনে অনৈতিক কাজের সন্ধান পাওয়া যায় এবং  অসামাজিক কাজে ব্যবরিত বিভিন্ন সরঞ্জামাধী আলামত পাওয়া যায়।পাশ্র্ববতী ব্যবসায়ীদের সাথে আলাপ করলে জানাযায় রেঞ্জার ফিজিওথেরাপী ক্লিনিকের পরিচালক হাফেজ আব্দুল্লাহ নাঈম নবীগঞ্জ শহরের চরগাও গ্রামের বিএনপির নেতা তৌহিদুল ইসলামের মেয়ে জামাই হওয়ায় বিষয়টি ধামা চাপা দেওয়া হয়েছিল।উল্লেখ্য হাফেজ আব্দুল্লাহ নাঈম ইমাম বাড়ি বাজারে রেঞ্জার ফিজিওথেরাপী ক্লিনিকের আরেকটি শাখায় থেরাপী কাজে নিয়জিত জনৈক যুবতির সাথে অনৈতিক কাজ করারও অভিযোগ উঠেছিল। হাফেজ আব্দুল্লাহ নাঈমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, তার বিরুদ্ধে এটা ষড়যন্ত্র করছে একটি মহল। সব ঘটনার সাথে তিনি জড়িত নন এর জন্য তিনি  থানায় অভিযোগ করছেন বলে জানান।

Login to post comments
  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular