May 19, 2022
Tuesday, 10 May 2022 12:52

নবীগঞ্জে আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাইফুলের নেতৃত্বে অস্ত্র মহড়া শহরের আতংক

নিজস্ব প্রতিনিধি

দৈনিক নবীগঞ্জের ডাক 

কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের কার্য নিবার্হী সংসদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক সারা দেশে উপজেলা ভিত্তিক ওর্য়াড কাউন্সিলের সম্মেলন প্রস্তুতি চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় জেলা আওয়ামীগের নির্দেশে নবীগঞ্জ উপজেলার পৌরসভার ওর্য়াডসহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ওর্য়াড কাউন্সিল ও সমচতার মাধ্যমে কমিটি গঠনের কাজ করছে। এরই মাঝে গত সোমবার  বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্য নিবার্হী সংসদের সভায় দলের শভানেত্রী ও প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশনা দেন গত নির্বাচনে কোন বিদ্রোহী প্রার্থী,বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে প্রচারানা চালিয়েছেন এবং কেউ দলের কাউন্সিলে অন্তর্র্ভূক্ত করা  এবং মনোনয়ন চাইতে পারবেনা এবং দলের কোন পদবী পাবেনা। প্রধান মন্ত্রীর ঘোষনার এমন সংবাদ পাওয়ার পর নবীগঞ্জ পৌরসভার বাবর বার নির্বাচিত কাউন্সিল বতর্মন প্যানেল মেয়র-১ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক জায়েদ চৌধুরী গত সোমবার রাতে শহরের নতুন বাজার মোড়ে দলীয় নেতাকর্মীকে ফোনে বিষয়টি অবগত করেন। জায়েদ চৌধুরীর ফোন আলাপের সময় উপজেলার আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী সেখানে উপস্থিত ছিলেন। ফোন আলাপ সাইফুল জাহান চৌধুরীর ভালো না লাগায় তার ভাই আতœীয় স্বজন ও গ্রামের লোকজন খবর দেন লাঠি সোটা ও অস্ত্র নিয়ে সাবেক এমপি খলিলুর রহমান রফির  বিবন শপিং সেন্টারের সামনে আশার জন্য। এ খবরের সাইফুল ও তার ভাই সাবেক ছাত্রদল নেতা রাজু চৌধুরী ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সাজু চৌধুরীর নেতৃত্বে শতাধিক লোক রামদা, রড, দেশ্রীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে শহরের নতুন বাজার মোড়ে অস্ত্রের মহড়া দেন। সেই সময় অস্ত্রধারীরা জায়েদ চৌধুরী নাম ধরে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করেন। পরে খবর পেয়ে জায়েদ চৌধুরী তার লোকজন ও সমর্থকদেও নিয়ে শহরের মহড়া দেন। মহড়া পাল্টা মহড়ার  খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ডালিম আহমদের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিল শহরে। শহরের প্রকাশ্য অস্ত্র মহড়া থেকে ব্যবসায়ী ও পথচারীদের মাঝে আতংকে ছড়িয়ে পরে। উল্লেখ্য গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরীর আপন ছোট ভাই জাবেদুল আলম চৌধুরী সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের জন্য দলীয় মনোনয়ন চান।  কিন্তু দলীয় সিদ্ধান্তে দলের মনোয়ন পান পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক হািিববুর রহমান হাবিব। দলীয় সিদ্ধান্ত উপক্ষো করে জাবেদুল আলম চৌধুরী সাজু  সতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করেন। ওই নিবার্চনে দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে কাজ করার সুনিদিষ্ট প্রমান পাওয়ায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধান সম্পাদক পদ থেকে বহিস্কার করা সাইফুলকে। নির্বাচনের পর তার বহিস্কার আদেশ প্রতাহার করা হয়। সদ্য ওর্য়াড পর্যায়ে সম্মেলন ও কাউন্সিলে অথিতি হিসাবে উপস্থিত থেকে তিনি কাউন্সিল সম্পূর্ন করতে দেখা যায়। সাইফুল জাহান চৌধুরীর এমন অস্ত্রেও মহড়ায় আওয়ামীলীগ,যুবলীগ,ছাত্রলীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীসহ মিশ্র প্রক্রিয়া দেখা দিয়েছে।নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ডালিম আহমদ জানান ঘটনার খবর পেয়ে আমরা তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে ছুটে যাই জায়েদ চৌধুরী ও সাইফুল জাহান চৌধুরী উভয়ের সাথে কথা বলে পরিস্থিতি শান্ত করে এলাকায় আইন শৃংখলা শান্তি বজায় রাখার আহবান জানাই। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহমদ মিলু বলেন ঘটনাটি দুঃখজনক যারা প্রকাশ্য অস্ত্র নিয়ে জায়েদ চৌধুরীর বাসায় গিয়ে তার উপর হামলা করতে চেয়েছে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায়  বিচারের দাবি জানান তিনি। এব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গিয়াস উদ্দিন আহমদ বলেন মহড়ার ঘটনাটি আমি শুনেছি তবে জায়েদ চৌধুরী  পৌর এলাকার সালামতপুর-নহরপুর ওর্য়াড কমিটি গঠন করাকে নিয়ে বাজে মন্তব্য কারার কারনে ও পারিবারিক দ্বন্দ কারনে ঘটেছে।

Last modified on Tuesday, 10 May 2022 13:14
Login to post comments
  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular