Monday, 05 October 2020 23:58

নবীগঞ্জে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ

হাসান চৌধুরী.

বার্তা সম্পাদক : দৈনিক নবীগঞ্জের ডাক। 

 নবীগঞ্জে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোেগ উঠেছে । ঘটনাটি ঘঠেছে নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের একটি পরিত্যক্ত ভবনে । ভিকটিমের ভাষ্য অনুযায়ী রবিবার দিবাগত রাতভর তাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে । গতকাল সােমবার সকালে ঘটনাটি জানাজানির পর দিনব্যাপী চলে নানা নাটকিয়তা । ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন পুলিশের এসএসপি , ওসিসহ একাধিক কর্মকর্তা । পুলিশকে দেয়া জবানবন্দিতে একেক বার একেক ধরণের তথ্য দিচ্ছে মহিলা । এতে পুলিশ বিভ্রান্তিতে রয়েছে । বিভিন্ন সূত্র মতে ঘটনার সাথে জড়িত কয়েকজন যুবক সিএনজি শ্রমিক । অনেকেই এ ঘটনাকে রহস্যজনক বলে মনে করছেন । এ ঘটনায় সর্বত্র চলছে আলােচনা সমালােচনার ঝড় । অনুমানিক ৩০ বছর বয়সী জনৈকা গৃহবধূর অভিযােগ , রবিবার সন্ধ্যায় সিএনজি যােগে শেরপুর থেকে মজলিসপুর যাচ্ছিলেন । এ সময় মজলিসপুর নামিয়ে না দিয়ে গৃহবধূকে হাত পা , মুখ বেধে রাতভর বিভিন্নস্থানে নিয়ে যায় সিএনজি শ্রমিকরা । পরে আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের একটি পরিত্যক্ত ভবনে এনে রাতভর সঙ্ঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ করা হয় । সারা রাত ধর্ষণ করে সকালে সিএনজি যােগে আবার তাকে আত্মীয়র বাড়ীতে পাঠিয়ে দেয়া হয় । এর পর স্থানীয় কিছু মাতব্বর ও জনপ্রতিনিধিরা আপস রফার চেষ্টা চালায় । সিএনজি শ্র মাঝেও গ্রুপিং থাকায় সঠিক তথ্য পাওয়া যা এদিকে ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হয়ে যায় এবং সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যম ফেইসবুকের মাধ্যমে গনধর্ষনের ঘটনাটি ভাইরাল হলে নবীগঞ্জ - বাহুবলের সার্কেল এএসপি পারভেজ আলম চৌধুরী ও নবীগঞ্জ থানার ওসি মােঃ আজিজুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের দুইটি টিম ঘটনাস্থলে পৌছে ভিকটিম গৃহবধুকে উদ্ধারসহ তার বক্তব্য সংগ্রহ করেন । এ সময় সংবাদকর্মী ও পুলিশের সামনে ধর্ষিতা গৃহবধু একেক সময় একেক ধরনের বক্তব্য দেন । কখনও বলেন ৭ জন তাকে ধর্ষন করেছে কখনও বলেন ৩ জন তাকে ধর্ষন করেছে । আবার কখনও তিনি ২১ থেকে ১৪ জন তাকে ধর্ষন করেছে বলে বক্তব্য দেন । ফলে তার বক্তব্য নিয়ে পুলিশ ও উপস্থিত জনসাধারন ও সংবাদকর্মীদের মধ্যে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয় । গৃহবধূ আরাে জানান , ধর্ষকরা তার মােবাইল থেকে সিম খুলে নিয়ে গেছে এবং মােবাইল ফোনের ডিসফ্লে নষ্ট করে গেছে । এ ব্যাপারে আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান হারুন জানান , মহিলার অসংলগ্ন বক্তব্যে আমরা বিষয়টি নিয়ে ধুম্রজালের মধ্যে পড়েছি ।এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ - বাহুবলের সার্কেল এএসপি পারভেজ আলম চৌধুরী জানান,ওই গৃহবধুর ভিন্নধর্মী বক্তব্যের জন্য মুল ঘটনাটি উদঘাটন করতে আমাদের বিলম্ব হচ্ছে । আমরা নিবিড়ভাবে তদন্ত করে মুল ঘটনা উদঘাটনের চেষ্টা করছি । অতিদ্রুত সময়ের মধ্যেই মূল ঘটনা উদঘাটন হবে বলে আমরা আশাবাদী । এদিকে সােমবার রাত সাড়ে ১০ টায় এ রিপাের্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনার সঠিক তথ্য পেতে ভিকটিম ও তার স্বামীকে থানা হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে । মামলা দায়ের বা কাউকে আটক করার তথ্য পাওয়া যায়নি । অপর দিকে সূত্র বলছে , ধর্ষিতা নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের কালাভরপুর গ্রামের জনৈকা গৃহবধূ । দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার সৈয়দপুর বাজার এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিল । কয়েক দিন আগে সে রহস্য জনকভাবে নিখোঁজ হয় । এ ঘটনায় এলাকায় চলছে আলােচনা সমালােচনা।

Last modified on Tuesday, 06 October 2020 00:49
Login to post comments
  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular
X

দুঃখিত !

ওয়েব সাইটে এই অপশন নাই।