Tuesday, 06 April 2021 12:19

নবীগঞ্জে কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তার বিরোদ্ধে ঘুষ নিয়ে ঋণ প্রদান ও গ্রাহকদের সাথে অসৎ আচরনের অভিযোগ

✍ নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ

নবীগঞ্জ উপজেলা কুষি ব্যাংক কর্মকর্তা দীপংকর ঘোষের বিরোদ্ধে ঘুষ নিয়ে অবৈধ কাগজ দিয়ে ঋন প্রদান করার অভিযোগ উঠেছে।ঘুষ  না দিলে  নিয়ে ঋণ পান না ওই ব্যাংকের গ্রাহকরা। বাংলাদেশ সরকার দেশের কৃষকদেও কথা চিন্তা করে সল্প মুনাফার নিয়ে এককালিন ও মাসিক হারে মৌসুমী ও কৃষি ঋণ প্রথা চালু করেছে। এক শ্রেনীর অসাধু কর্মকর্তার জন্য প্রকৃত কৃষকরা এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। আর অসাধু কর্মকর্তাদের উৎকোষ দিয়ে লাভবান হচ্ছেন এক শ্রেনীর সুবিধাভোগি মানুষ। কাগজ টেম্পারিং করে ঋণ নিচ্ছেন সুবিধাভোগিরা আর প্রকৃত সহজ সরল কৃষকরা বৈধ কাগজয়াদি থাকার পরও পাচ্ছেন না ঋণ। এ ব্যাপারে মঙ্গলবার বিকেলে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন করগাঁও  ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের মৃত রাধা রমন গোপের পুত্র সুশেন গোপ। অভিযোগ সূত্রে জানাযায়,নবীগঞ্জ উপজেলার করগাও ইউনিয়নের  দূর্গাপুর গ্রামের মৃত রাধা রমন ঘোষের পুত্র সুশেন গোপ নবীগঞ্জ কৃষি ব্যাংক  শাখা থেকে কৃষি ঋণ নেওয়ার জন্য আবেদন করেন। তিনি আবেদন করলে ব্যাংকের অফিসার সুশেন গোপকে বলেন তোমার  পুরাতন ঋণের ১৮,৫৬৬ টাকা পরিশােধ করিলে ব্যাংক থেকে তুমি  নতুন সুযোগ সুবিধার আরো বড় ঋণ নিতে পারবে । সুশেন গোপ ব্যাংক ব্যবস্থাপক দীপংকর ঘোষের কথা মতো বড় ঋণ পাওয়ার আসায় এককালিন টাকা দিয়ে সুশেন গোপ পুরাতন ঋণের টাকা পরিশ করেন।ঋণ পরিশোধ করার পর ওই কর্মকর্তা আজ দিবেন কাল দিবেন বলে সময় ক্ষেপন করেন। এক পর্যায়ে ব্যাংক ব্যবস্থাপক তার কাগজপত্র জাল বলে তাকে ঋণ  দেওয়া যাবেনা বলে জানান। তিনি তার কারন জানতে চাইলে ব্যাংক কর্মকর্তা ব্যাংকের সাথে প্রতারানা করার অপরাধে তাকে পুলিশে দিবেন বলে হুমকি প্রদান করেন।  গ্রামের সহজ সরল কৃষক হুমকি ভয় পেয়ে তার চাচা বীর মুক্তিযোদ্ধা সুনীল গোপকে সাথে নিয়ে ব্যাংকে গেলে ব্যাংব ব্যবস্থাপক তাদেও দুজনের সাথে খারাপ আচরন করেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। পড়ে ব্যাংক ব্যাবস্থাপক তাকে একা আসতে বলেন তিনি আরো বলেন একা আসলে পাবে  তা না হলে ঋণ পাবে না। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তা দীপঙ্কর ঘোষ বলেন,সুশেন গোপ  আমাদের শাখার ঋণ খেলাপি উনাকে ঋণ দেওয়া যাবে না। তাছাড়া উনি বিশস্থ না উনাকে আমরা ঋণ দিবনা শুধু  পুরাতন ঋণ তুলার জন্য আমরা এই তার সাথে এই কৌশলটি অবলম্বন করেছি। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহি উদ্দিন বলেন নবীগঞ্জ কৃষি ব্যাংক শাখার ব্যবস্থাপকের বিরোদ্ধে একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যাংক ব্যবস্থাপক দোষি প্রমানিত হলে আইননুক ব্যবস্থা নেওয়া  হবে।



Login to post comments
  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular
X

দুঃখিত !

ওয়েব সাইটে এই অপশন নাই।