Login to your account

Username *
Password *
Remember Me

Create an account

Fields marked with an asterisk (*) are required.
Name *
Username *
Password *
Verify password *
Email *
Verify email *
Captcha *
Reload Captcha
Thursday, 09 July 2020 09:52

''বাসযোগ্য একটি সুন্দর সমাজ ''

উইলিয়াম শেক্সপিয়র যথার্তই বলেছিলেন, "পৃথিবীর জীবন নামক নাট্যমঞ্চে সবাই একেকজন অভিনেতা /অভিনেত্রী। শুধুমাত্র চরিত্রগুলো ভিন্ন।" পৃথিবীর নাট্যমঞ্চে ভাল চরিত্রের বড়ই অভাব ! পৃথিবীর নাট্যমঞ্চের দিকে তাকালে দেখা যায় বেশির ভাগ অভিনেতা / অভিনেত্রীরা কেউ চোখের আলো থাকা সত্ত্বেও অন্ধের ভান করছে, কেউ চামবাজী করে জি হুজুর -জি হুজুর করছে, কেউ বোধশক্তি হারিয়ে নির্বোধের মতো আচরন করছে , কেউ নিজেকে আত্ত-অহমিকায় সর্বোত্তম মনে করছে,কেউ করছে লুচ্চামি, কেউ করছে নোংরামি, কেউ করছে ভন্ডামি, কেউ নিন্দার কাজে ব্যস্ত, কেউ হিংসার কাজে ব্যস্ত, কেউ ধ্বংসলীলার কাজে ব্যস্ত ,কেউ খেলছে আর কেউ হা করে নিরব দর্শকের মতো তাকিয়ে আছে , যেন এই দুনিয়াতে দেখা ছাড়া তার কিছুই করার নেই ! মাঝে মাঝে মনে উকি দেয় প্রশ্ন মানুষের এই রং বা রুপের শেষ কোথায়? আজ মানুষ হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে সমাজকে বিষাক্ত করে তুলছে। স্রষ্টা মানুষকে বিবেক-বুদ্ধি দিয়েছেন ভাল-মন্দ বুঝার জন্য। আর সেই মানুষ স্রষ্টার দেওয়া বিবেক-বুদ্ধি কে উপেক্ষা করে দিনের পর দিন মন্দ কার্যে লিপ্ত থেকে প্রকৃতি ও মানুষের জীবনকে করে তুলেছে বিষাক্ত।আর সময়বুঝে এই বিষাক্ত হওয়া প্রকৃতি নেয় সবচেয়ে বড় প্রতিশোধ তার উপর অন্যায় -অভিচারের !সময়মতো, প্রকৃতিও বুঝিয়ে দেয় প্রত্যেক মানুষকে তার পাপ্য হিসেব । এটাই "ন্যাচারাল ল"।যাইহোক, একটা গল্প বলে আজকের লেখা শেষ করছি। গল্পটা হল বিদেশী এক বাই-সাইকেল ওলা এবং এক অবসরপ্রাপ্ত আর্মি অফিসারের। বাই-সাইকেলের মালিক বয়সে খুব তরুন ছিল। প্রতিদিন সকালে সে বের হত আর মনের আনন্দে ঘুরে বেড়াত। একদিন সকালে সে দেখতে পায় রাস্তায় একজন লোক আহত অবস্থায় পড়ে আছে। সে ঐ আহত লোকটিকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। আহত ব্যক্তির জ্ঞান ফিরে আসলে সে জানতে চায় সে এখানে কিভাবে আসল? উপস্থিত থাকা সাইকেল ওলা বলে, "আপনি রাস্তায় পড়ে ছিলেন। আমি আপনাকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছি।"আহত ব্যক্তি সাইকেল ওলাকে ধন্যবাদ দেয় এবং জানতে চায় তার পরিচয়। সাইকেল ওলা উত্তরে বলে বাই-সাইকেল ছাড়া এই দুনিয়াতে আমার কেউ নাই!!! কথাটা শুনে আহত ব্যক্তি খুব মর্মাহত হলেন। সাইকেল ওলা বলল আপনার সম্পর্কে বলেন। উত্তরে আহত ব্যক্তিটি বলেন," আমি একজন আর্মি অফিসার। আল্লাহ্'র‌ রহমতে আমার বউ- ছেলে-মেয়ে সবই আছে।" তারপর সাইকেল অফিসার সাহেবকে বাড়ি দিয়ে আসে। পরের দিন সাইকেল ওলা আবার যায় অফিসার সাহেব কে দেখতে।এভাবে দিনের পর দিন আসা যাওয়া করতে করতে অফিসার সাহেব ও সাইকেল ওলার মাঝে অনেক ভাল বন্ধুত্ত গড়ে উঠে।দুইজন-ই- খুব সকালে বের হত ব্যায়াম করতে। একজন - আরেক জনের সাথে সুখ-দুঃখের কথা শেয়ার করত। একদিন গল্প করার সময় অফিসার সাহেব জানতে চান সাইকেল ওলার কাছে তোমার স্বপ্ন কি? উত্তরে সাইকেল ওলা বলে, "একটি খামার বাড়ি। আমি ছোটবেলা থেকে একটি খামার বাড়ির স্বপ্ন দেখতাম আর ভাবতাম আমার স্বপ্ন সত্যি হলে আমি একজন সুখী মানুষ হব। তারপর সাইকেল ওলা অফিসার সাহেবকে বলে আপনাকে একটা কথা জিজ্ঞেস করব অনেক দিন ধরে ভাবতেছি। আমি খেয়াল করে দেখলাম আপনি মাঝে মাঝে অন্যমনস্ক হয়ে কি ভাবেন?" উত্তরে অফিসার সাহেব বললেন, "তোমার সাথে আমি সব বিষয় -ই শেয়ার করি। আর এটাও লুকাব না। আমি পারিবারিক কলহে জর্জড়িত। তাই আমার বাসায় থাকতে বেশি ভাল লাগে না। আমার একটা খামার বাড়ি আছে ঐখানেই সময় কাটাই। তোমায় ঠিকানা দিচ্ছি তুমি কাল চলে এসো আমার খামার বাড়িতে।" পরের দিন সকালে সাইকেল ওলা গেল ঐখামার বাড়িতে। অফিসার সাহেব তাকে দেখে কাছে আসতে বললেন। সে কাছে আসলে অফিসার সাহেব তার হাতে একটা কাগজ দিয়ে বলেন আজ থেকে এই খামার বাড়িটি তোমার । তিনি আর ও বলেন, "তোমার স্বপ্ন আজ সত্যি হয়েছে। এটা আমার সবচেয়ে প্রিয় জায়গা আর তুমিও আমার সবছেয়ে প্রিয় মানুষ তাই তোমায় দিলাম।" কথাগুলো শুনে সাইকেল ওলার চোখে জল এসে যায় আর সে অফিসার সাহেব কে কাঁদতে কাঁদতে জড়িয়ে ধরে বলে ,"আমার জীবন দিয়ে হলেও আমি আপনার দেওয়া উপহারটা আগলে রাখব।" তারপর দুইজন দুইজনের বাসায় চলে যায়। পরের দিন সকালে সাইকেল ওলা খামার বাড়িতে যায়। সে অফিসার সাহেবের জন্য অপেক্ষা করছে অনকেক্ষন ধরে।অপেক্ষা করতে করতে অফিসার সাহেব না আসার কারনে সে রওনা দেয় অফিসার সাহেবের বাসার উদ্দেশ্যে। বাসার সামনে হাজির হতেই সে কান্নার শব্দ শুনতে পায়। বাসার ভিতরে গিয়ে দেখে অফিসার সাহেব মারা গেছেন। অফিসার সাহেবের লাশ দেখে সে মূর্তির মতো দাড়িয়ে ছিল আর গতকালের কথা মনে করে তার দুই চোখ দিয়ে অশ্রু জড়ছিল।..................... অনেকদিন পরে অফিসার সাহেবের উত্তরাধিকারিরা খামারের সত্ত দাবি করে আদালতে মামলা দায়ের করে সাইকেল ওলার বিপক্ষে । আদালত বাদি ও বিবাদীর পক্ষের উকিলের সমস্ত বক্তব্য শুনে রায় দেয় সাইকেল ওলার পক্ষে। আদালত বলেন যে, "একজন সাইকেল ওলার পক্ষে কখনই সম্ভব নয় যে একজন অবসরপ্রাপ্ত আর্মি অফিসারকে প্রভাবিত করা। " পরিশেষে একটা কথা বলে শেষ করতেছি , আসুন আমরা প্রত্যেকে নিজের মনকে পরিষ্কার-পরিচন্ন করে নিজে ভাল ও সুন্দর স্বপ্ন দেখি ও অন্যের স্বপ্নপূরনে নিজের হাত বাড়িয়ে দিয়ে একটি বাসযোগ্য সুন্দর সমাজ গড়ে তুলি। 

Rate this item
(0 votes)
Login to post comments
  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular

LIVE STREAMING

Jun 11, 2019 407 Movies

X

দুঃখিত !

ওয়েব সাইটে এই অপশন নাই।